সৌদিতে বাংলাদেশের নারীরা ঘণ্টা চুক্তিতে যা করছেন

রব নিউজ একজন যুবক এবং ৪০ বাংলাদেশী নারীর এক কৌতূহলী কাহিনী ছাপা হয়েছে। এই নারীরা সবাই কাজ করছেন ঘণ্টা চুক্তিতে। বাসাবাড়িতে মাসিক চুক্তিতে কাজের বেতন অল্প, খাটুনি বেশি। তারপর নানা গঞ্জনা। তাই এভাবে কাজ করে আয় করছেন তারা।

আর এই সুযোগ করে দিয়েছেন বাংলাদেশী আইনবিদ মাহবুব। তিনি বলেন, আমি একজন আইনবিদ তবে সৌদিতে ট্যাক্সি চালাই। আমার গাড়িতে অনেক সৌদি মহিলা চলাচল করেন। তারা আমার কাছে গৃহকর্মী চান। এ অবস্থায় আমি সিদ্ধান্ত নেই যে, আমি তো অনেক বাংলাদেশী মেয়েকে চিনি-জানি। তখনই পরিকল্পনা করি যে, ঘণ্টার ভিত্তিতে বুয়া সাপ্লাই দেবো।

বুয়ারা দারুণ খুশি। কারণ কোন বাড়িতে মাসভর থাকলে বেতন মেলে ১৫০০ রিয়াল (প্রায় ৩১ হাজার টাকা)। অথচ ঘণ্টা হিসেবে কাজ করলে মাসে তাদের আয় আড়াই হাজার রিয়াল। বাংলাদেশী টাকায় সাড়ে ৫১ হাজার টাকার বেশি, তাদেরকে সরবরাহের বিনিময়ে কমিশন পাই। তবে সৌদিতে যতজন গৃহকর্মী পালিয়ে এসেছেন তাদের ৯৯% বিভিন্নভাবে অন্যায় শোষণ ও শাসনের শিকার হয়েছেন বলে জানান। অনেক শাসনের চিত্র বড়ই নির্মম। তেমনি একটি চিত্র দেখুন ভিডিওতে।

ভিডিওঃ http://somoyersathi.org/archives/442

(Visited 1 times, 1 visits today)

Comments

comments