সদ্য বিবাহিত মেয়েদের যে বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখা উচিত

বিয়ের আগে হবু শ্বশুরবাড়ির সবার সাথে বেশ সহজ সম্পর্ক হলেও বিয়ের পর কিন্তু স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে সম্পর্ক আমূল বদলে যেতে পারে। বিয়ের আগে বেশ কয়েকবার ঘুরে এসেছেন শ্বশুরবাড়ি। হবু স্বামী আর শ্বশুরবাড়ির সকলের সাথে বেশ ভাল করেই পরিচয় হয়ে গেছে। আপনি চান বিয়ের পরও এই রকম সম্পর্ক যেন সবার সাথে টিকে থাকে।

কিন্তু যেকোন মেয়ের জন্য নিজের সব কিছু ছেড়ে শ্বশুরবাড়ির সব মানুষের সাথে প্রথম প্রথম মিলেমিশে থাকাটা অনেক কষ্টের হয়ে থাকে। কীভাবে সামলাবেন এই সম্পর্ক বদল? জেনে রাখুন কিছু সমাধান সুত্র।
  • স্বামীকে শ্বশুরবাড়ির অন্যান্যদের সঙ্গে ভাগ করে নিন। তিনি আপনার সবচেয়ে কাছের মানুষ তাতে সন্দেহ নেই। কিন্তু তাঁর পরিবারের অন্য পরিচয়গুলো ভুলে গেলে চলবে না।
  • দৈনন্দিন জীবনে সমস্যা দেখা দিলে সব সময় নিজের বাবার বাড়ির মানুষজনকে বলতে যাবেন না বরং শ্বশুরবাড়ির গুরুজনদের পরামর্শ নিন। তাঁদের অভিজ্ঞতার মূল্য দিলে তাঁরা খুশি হবেন।
  • নতুন শ্বশুরবাড়ির সবাই যে আপনার মন মত হবেন বা আপনার পছন্দসই ব্যবহার করবেন, এইরকম প্রত্যাশা না করাই ভাল। কারও সাথে মতামত না মিললে চট করে মেজাজ খারাপ করবেন না।
  • শ্বশুরবাড়িতে প্রথম দিন থেকেই পারিবারিক বন্ধন মজবুত করার প্রতি যত্নশীল হয়ে উঠুন। চেষ্টা করুন রাতের খাবার একসাথে খেতে, যা সবার সাথে গল্প কররা একটা সুযোগ পাওয়া যায়।
  • শ্বশুরবাড়ির অভ্যন্তরীণ কোন সমস্যা হলে চেষ্টা করুন নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে। একে অপরের সম্বন্ধে কথা চালাচালি করা বা নিজেকে কোন ঝামেলায় জড়িয়ে ফেলা নিশ্চয়ই ভাল রুচির পরিচয় দেয় না।
  • ছোট ছোট কাজের মাধ্যমে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির মানুষের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করুন। শ্বশুরের কাগজপত্র গুছিয়ে দিন, পছন্দের কোন খাবার তৈরি করে দিন, শাশুড়িকে বাড়ির যে কোন কাজে সাহায্য করুন।
  • নিজের বাবার বাড়িতে ছোট খাটো ভুল করে সব মেয়েরাই পার পেয়ে যেতে পারে কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে কোন ভুল করে ফেললে তাঁর মাফ আপনি নাও পেতে পারেন। তাই বুঝে-শুনে চলুন সতর্ক থাকুন।
আপনার বাবা-মা হয়তো খুব সহজেই আপনার সমস্যা, মান-অভিমান বুঝতে পারতো তাই বলে যে শ্বশুরবাড়ির মানুষজন আপনার সব কিছু বুঝে নিবে তা সম্পূর্ণ ভুল ধারনা। তাই নিজেকে সংযত রেখে চলাই ভালো। কোন কিছু নিয়ে খুব সমস্যায় থাকলে স্বামীকে বুঝিয়ে বলুন।
(Visited 1 times, 1 visits today)

Comments

comments